পিকে হালদারের ৭০-৮০ জন গার্লফ্রেন্ডের সন্ধান!

৩ হাজার ৬শ’ কোটি টাকা আত্মসাৎ ও পাচারের অভিযোগে বিদেশে পলাতক পিকে হালদারের ৭০-৮০ জন গার্লফ্রেন্ডের সন্ধান পেয়েছে দুদক।

তাদের একাউন্টে কোটি কোটি টাকা লেনদেনের তথ্য মিলেছে।

রোববার (২০ ডিসেম্বর) সকালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান দুদক আইনজীবী খুরশীদ আলম খান।

তিনি জানান, তদন্তে প্রমাণিত হলে তাদেরও আসামি করা হবে।

দুদক আইনজীবী জানান, পিকে হালদারকে ধরতে এরইমধ্যে গ্রেফতারি পরোয়ানা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে ইন্টারপোলের কাছে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে পিকে হালদার দেশে ফিরতে চেয়েও ফেরেননি। এমনকি তার অবস্থান নিয়েও নিশ্চিত নন কেউ।

প্রসঙ্গত, প্রশান্ত কুমার হালদার, ব্যাংক পাড়ায় তিনি পরিচিত পিকে হালদার নামে, বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা আত্মসাৎ করে লাপাত্তা রয়েছেন।

মাঝে একবার টাকা ফেরতের শর্তে দেশে ফিরতে চাইলেও দেশে ফিরলে গ্রেফতার হতে হবে হাইকোর্টের এমন আদেশের পর অসুস্থতার কথা বলে আর ফেরেননি তিনি।

জানা গেছে, কানাডার বেগম পাড়ায় বাড়ি করে রাজকীয় জীবন যাপন করছেন তিনি।

গত ২৬শে নভেম্বর ঢাকা মহানগর আদালত থেকে পিকে হালদারের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা ইস্যু করে। এরপর পিকে হালদারকে দেশে ফিরিয়ে আনতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে ইন্টারপোলের সহায়তার আবেদন করে দুদক। প্রায় সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা আত্মসাত ও পাচারের অভিযোগে পিকে হালদারের বিরুদ্ধে দুদকের অনুসন্ধান চলছে।

গত ১০ই আগস্ট দুদকের চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে আত্মসাতকৃত অর্থের মধ্যে তিন হাজার কোটি টাকা জব্দ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ৩৯টি প্রতিষ্ঠানের সংশ্লিষ্ট ৮৩ জনের ব্যাংক হিসাবে এসব অর্থের লেনদেন হয়েছে।

এর আগে, গত ৮ই জানুয়ারি প্রশান্ত কুমার হালদারের বিরুদ্ধে ২৭৪ কোটি ৯১ লাখ ৫৫ হাজার ৩৫৫ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে মামলা করে দুদক। মামলার এজাহারে ১ হাজার ৬৩৫ কোটি টাকা পাচারেরও অভিযোগ আনা হয় তার বিরুদ্ধে।