২.৬ সিজিপিএ নিয়ে বিসিএস ক্যাডার

A Backlogger’s Promise to His Mother!

রাশেদ যখন বয়লায় ল্যাবে ডিউটি করতে ঢুকলো তখন আমি রুয়েট লাইফে প্রথমবারের মত বাস্তবতার সম্মুখীন হলাম।

রাশেদ আমার ক্লাসমেট, ল্যাবমেইট আর আজকে রাশেদ আমার লগ এক্সামের টিচার৷ পরের পাঁচ মিনিট কলমটা পাশে রেখে জানালা দিয়ে বাইরে তাকিয়ে ছিলাম। অনুভূতিটা ছিলো বিশেষণহীন।

সিক্সথ সেমেস্টারে বোর্ড ভাইবা দিতে বসেছি, তিনজন স্যার ছিলেন। জিজ্ঞাসা করলেন “তোমার সিজি কত?”। বললাম ২.৬০।

শুনার পর স্বাভাবিক স্যাররা ভালোভাবে নিতে পারেননি, তাচ্ছিল্যটাই চোখে পড়েছিল। আবার এক বোর্ড ভাইবায় যখন সব ঠিকঠাক আন্সার দিতে পারলাম তখনই আমার থিসিস সুপারভাইজার এসে বললেন “স্যার এইটা ৬৬(আমার রোল), কিচ্ছু পারে না, রিপিট দেন।”

এমন ও হয়েছিল যে আমাকে রিপিট তো দেয়া হয়েছিলই সাথে দরজায় দাড়িয়ে ৬০ জনকে কি কি প্রশ্ন করা হয়েছে শুনে নিয়ে পরদিন আন্সারসহ রিপোর্ট আকারে জমা দিতে বললেন।

প্রত্যেককে ১০ টা করে প্রশ্ন করা হলেও ৬০ জনকে করা ৬০০ প্রশ্ন আমাকে আন্সার সহ জামা দিতে হয়েছিলো পরদিন। কিন্ত শেষ রক্ষা হয়নি, আত্মসম্মানবোধর কারনে ম্যাট ল্যাবে লগ দিয়ে দিয়েছিলেন সেবার।

কিছু স্যার বার বার মনে করিয়ে দিয়েছেন হয়তো পাশ করে বের হওয়া হবে না আমার, কেউ হয়তোবা বলেছেন পাশ করলেও চাকরি হয়তো পাওয়া হবে না৷(স্পেসিফিকালি সরকারি বা স্বায়ত্তশাসিত)

প্রথম দিকে সবাই ক্লাসমেট বা বন্ধু থাকলেও শেষে সিজিভিত্তিক বৈষম্য তৈরি হয়েছিলো, শ্রেণীবিভাজন করা হতো সিজির ভিত্তিতে।

একবার এক হাইসিজিধারীর কাছে গিয়েছিলাম ম্যাথ বুঝতে, বন্ধু উপহাস করে বলে দিয়েছিলো This Math is outta your League!

যাই হোক অনেক স্যার শেষদিকে হেল্প করেছেন অনেক, অনেক ছোট ভাই হেল্প করায় পাশ করি কোনরকম। সব সময় বিলিভ করে গেছি ৭০ এ যদি ৫০ পেয়ে পাশ করতে পারি সিজি কোন ব্যাপার না৷ আমার সিজি আমার চয়েস।

ব্যাচ বের হয়ে যাওয়ার পর ১০ টা লগ ছিলো সাথে একটা ল্যাবে লগ, জব করেছি, এসে এসে লগ ক্লিয়ার করেছি।

পাশ করার পর মাকে বলে জব টা ছেড়ে দেই, বলেছিলাম

Put some faith for the last time, I will not fail you.

( বাসায় সবাই তখন আমার উপর বিশ্বাস হারিয়ে ফেলেছে)

পাশ করার পর দুই মাস ছিলো প্রিলির, ১৫০ টা আন্সার করেছিলাম যেখানে ১১০ সেইফ স্কোর।

তারপর রিটেনে মেকানিক্যালে প্রথমবারের মত ফুল আন্সার করেছিলাম।

ভালো এক্সাম দিয়েও সব সময় একটা খারাপ লাগা কাজ করতো যে জেনারেল ক্যাডারে আসলে ইঞ্জিনিয়ারিংটা ছেড়ে দিতে হবে।. রেজাল্ট শিটে যখন দেখলাম সড়ক ও জনপথ ( Mechanical) অনেকেই হয়তো খুশি হয়নি

but I was the happiest person alive. It was a relief that i was able to keep my promise to my mother & I will still be an Mechanical Engineer.

হেরে যাযইনি Low CGPA এর কাছে৷ আমার সিজি ২.৬০ & I’m proud of it.

(এইগুলা কখনো কারো কাছে বলার ইচ্ছে ছিলো না, শুধু লো সিজি আর ব্যাকলগারদের জন্য লিখলাম, ওরা ছাড়া কেউ জানে না নিজ ব্যাচ চলে যাওয়ার পর কিসের মধ্য দিয়ে যেতে হয়)

কিন্ত শেষ কথা হলো আগে আর পরে, পরিশ্রমটা ঠিকই করতে হবে।

আর স্যাররা সবসময় আমাদের ভালো চান। ভালো চান বলেই বিভিন্নভাবে আমাদের ভেতর থেকে ভালোটা বের করে আনার চেষ্টা করে যান। প্রথমদিকে না বুঝলেও পরে বুঝতে পেরেছি৷ বাবা মায়ের পর উনারাই সর্বাপেক্ষা শুভাকাঙ্ক্ষী।

Let not your cgpa to define you.

(Bilingual)

When Rashed entered the Boiler lab, I was confronted with reality for the first time in my life. Rashed is my classmate, labmate and today he is my log exam teacher. For the next five minutes, I kept the pen aside and looked out the window. The feeling was adjectiveless.

I sat down to give board viva in the sixth semester, there were three sir who asked, “How much is your CGPA?”. I said 2.60. After hearing that naturally, Sir could not take it well, the contemptuous tie was in sight.

When I was able to give all the correct answers to one of the board members, my thesis supervisor came and said, “Sir, he is 66(this is my roll), nothing can be done, repeat.”

It so happened that as soon as I was given a repeat, I stood at the door and asked 60 people what questions had been asked and asked me to submit the report in the form of an answer the next day.

Although everyone was asked 10 questions, I had to answer the 600 questions asked by 60 people the next day. But the last was not saved, out of self-respect, the service was logged in the math lab.

Some sir has repeatedly reminded me that maybe I will not pass, someone may have said that even if I pass, I may not get a job. (Specifically government or autonomous) In the beginning, everyone was a classmate or friend but in the end, CG based discrimination was created, classification was done on the basis of CG.

Once I went to a high school student to understand Math, my friend mocked and said This Math is outta your League! Anyway, a lot of sirs have helped a lot in the end, a lot of younger brothers helped me somehow.

I have always believed that if I can get 50 at 80 and pass CG, it doesn’t matter. My CG is my choice. After the batch left, there were 10 logs with a log in a lab, I did the job, I came and cleared the log.

After passing, I told my mother that I wanted to leave my job, I said to put some faith for the last time, I will not fail her. (Everyone at home then lost faith in me).

After passing, it was two months to the preliminary exam, I did 150 answers where 110 is a safe score.

Then I did the full answer for the first time mechanically in the return. Even with a good exam, it always felt bad to have to give up engineering in the general cadre.

When I saw in the result sheet, many people may not have been happy with roads and highways (mechanical) but I was the happiest person alive.

It was a relief that I was able to keep my promise to my mother & I will still be a Mechanical Engineer. I did not lose to Low CGPA. My CG 2.60 & I’m proud of it.

(I never wanted to say this to anyone, I just wrote for low CGs and backloggers, no one but them knows what to go through after leaving their batch) But the bottom line is that before and after, the hard work has to be done.

And sirs always want the best for us. Try to get the good out of us in different ways just because you want the good.

Although I didn’t understand at first, I understood later After parents, they are the most well-wishers. Let not your cgpa to define you.

Anind Avi
Department of Mechanical Engineering, ’10 series
Assistant Engineer (Mechanical)
Roads & Highway
Merit order: Sixth 38th BCS

[He was also the founder of Studio Gollachut, game developing platform for RUETIANs & made first Android game from RUET back in 2014.

And was Captain of RUET Basketball Team & highest scorer for RUET in interuniversity basketball.]

©Human’s of RUET

Invest in Social

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *