৩০ দেশের অংশগ্রহণে খুবিত ICECIT সম্মেলন

খুবি

ইলেক্ট্রনিক্স অ্যান্ড কমিউনিকেশন্স ইঞ্জিনিয়ারিং (ইসিই) ডিসিপ্লিন আয়োজিত তিনদিনব্যাপী আইসিইসিআইটি-২০২১ তথা ইন্টারন্যাশনাল কনফারেন্স অন ইলেক্ট্রনিক্স, কমিউনিকেশন্স অ্যান্ড ইনফরমেশন টেকনোলজি শীর্ষক ভার্চু্যয়াল আন্তর্জাতিক সম্মেলন শেষ হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) রাতে সমাপনী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এ সম্মেলন শেষ হয়।

সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সম্মেলনের চিফ প্যাট্রন ও বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন।

তিনি বলেন, এই আন্তর্জাতিক সম্মেলন সফল হওয়ায় খুলনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে এখান থেকে পাওয়া সুপারিশ ও দিকনির্দেশনা ভবিষ্যতে কাজে লাগানো যাবে। এই সম্মেলন নবীন-প্রবীণ গবেষকদের মধ্যে পারস্পারিক যোগাযোগের সুবিধা সৃষ্টি করেছে, যার দ্বারা খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবীন শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা গবেষণায় অনুপ্রাণিত হবে। তিনি এই সম্মেলন আয়োজন করায় ইসিই ডিসিপ্লিনের প্রশংসা করেন এবং অংশগ্রহণকারী প্রতিনিধিদের আন্তরিক শুভেচ্ছা ও ধন্যবাদ জানান।

সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সম্মেলনের প্যাট্রন ও বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. হোসনে আরা, বিজ্ঞান, প্রকৌশল ও প্রযুক্তিবিদ্যা স্কুলের ডিন প্রফেসর ড. আফরোজা পারভীন, কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং (সিএসই) ডিসিপ্লিন প্রধান প্রফেসর ড. জি এম আতিকুর রহমান, নগর ও গ্রামীণ পরিকল্পনা (ইউআরপি) ডিসিপ্লিন প্রধান প্রফেসর ড. মো. আশিক উর রহমান। অনুষ্ঠানে সূচনা বক্তব্য রাখেন অর্গানাইজিং কমিটির সভাপতি প্রফেসর ড. মো. মনিরুজ্জামান। আরও বক্তব্য রাখেন টেকনিক্যাল কমিটির সভাপতি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ইসমত কাদির ও সদস্য-সচিব প্রফেসর ড. মো. আব্দুল আলিম।

সম্মেলনে বাংলাদেশসহ বিশ্বের ১৬টি দেশের ৩০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধি অংশ নেন। দেশগুলো হচ্ছে বাংলাদেশ, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, যুক্তরাজ্য, আয়ারল্যান্ড, ফিনল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, চীন, মালয়েশিয়া, ভিয়েতনাম, ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা ও নেপাল। সম্মেলনে ৩১২টি গবেষণা প্রবন্ধ জমা হয়। যার মধ্যে ১২৩টি গৃহীত হয়। এরমধ্যে ১১৯টি উপস্থাপন করা হয়। সম্মেলনে মোট ৪৪টি সেশনের মধ্যে ২৪টি ছিল টেকনিক্যাল সেশন।

Invest in Social

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *